You are here
Home > বাংলাদেশ > জেলার সংবাদ > বিধবার ঋণ শোধ করে দিলেন ইয়াকুব ও হাকিম আবদুল্লাহ

বিধবার ঋণ শোধ করে দিলেন ইয়াকুব ও হাকিম আবদুল্লাহ

Share

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি।। চার সন্তানের জননী বিধবা শরিফা বেগমের ঋণ পরিশোধ করে দিলেন মো. ইয়াকুব ও হাকিম আব্দুল্লাহ।

শরিফা বেগম ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়নের কাকরিয়া গ্রামের মৃত সবুজ মিয়ার স্ত্রী। গত দুই বছর আগে সবুজ মিয়া (৩৫) নবীনগরে স্টিলবডি নৌকা তৈরীর একটি ডকে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে মারা যায়।

ব্যবসায়ী ইয়াকুব মিয়া উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়নের এবং প্রবাসী হাকিম আব্দুল্লাহ পাকশিমুল ইউনিয়নের বাসিন্দা।

সোমবার দুপুরে এক্সিম ব্যাংক অরুয়াইল শাখায় ঋণ পরিশোধের জন্য বিশ হাজার টাকা শরিফার হাতে তুলে দেন গরিবের বন্ধু সংগঠনের সম্মানিত দাতা সদস্য মো. ইয়াকুব মিয়া। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এক্সিম ব্যাংকের ম্যানেজার বদরুল আলম, আজকের পত্রিকার সরাইল প্রতিনিধি এম মনসুর আলী, নোয়াব মিয়া প্রমুখ।

গত ১১ মে সংবাদকর্মী এম মনসুর আলী
‘ঋণের চাপে বাড়ি ছাড়া বিধবা শরিফা’ শিরোনামে ফেসবুক একটি পোষ্ট করেন।

এই মানবিক পোষ্টটি মো. ইয়াকুব মিয়া, প্রবাসী হাকিম আব্দুল্লাহর নজরে আসলে তারা শরিফার ঋণ শোধের উদ্যোগ নেন।

জানা যায়, চারটি ছোট ছোট সন্তান রেখে শরিফা বেগমের স্বামী সবুজ মিয়া ২ বছর আগে মারা যায়। ২শতক বাড়ি ছাড়া তাদের আর কিছুই নাই। স্বামীর মৃত্যুর পর শরিফা গ্রামে গ্রামে ফেরি করে শাড়ি কাপড় বিক্রি করতো। লোকসান হওয়ায় শাড়ি বিক্রি ছেড়ে দেয় সে। এই ফাঁকে বিশ হাজার টাকার ঋণের জালে আটকে যায় শরিফা। ঋণদাতার চাপ সইতে না পেরে স্বামীর ভিটা ছেড়ে সন্তানাদি নিয়ে বাপের বাড়ি চলে যায় সে।

শরিফা বেগম টাকা হাতে পেয়ে আনন্দে কেঁদে পেলে। এই ঋণের টাকা জীবনে পরিশোধ করতে পারবে সে তা কল্পনাও করেনি। মানুষের বাড়িতে কাজ করে সন্তানদের মুখের খাবার যোগার করায় তার পক্ষে কষ্টকর, ঋণ শোধ করবে কিভাবে। বিশ হাজার টাকা তার কাছে লাখ টাকার মতো মনে হচ্ছে।

Leave a Reply

Top