You are here
Home > বাংলাদেশ > জেলার সংবাদ > ভুলে বিকাশে চলে আসা টাকা ফেরত দিয়ে সততার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন সরাইলের এমরান

ভুলে বিকাশে চলে আসা টাকা ফেরত দিয়ে সততার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন সরাইলের এমরান

Share

এম মনসুর আলী, সরাইল( ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি।। ভুল করে নিজের বিকাশ একাউন্টে আসা ৫০ হাজার টাকা পুলিশের উপস্থিতিতে প্রকৃত মালিকের হাতে তুলে দিলেন এমরান। লন্ডন থেকে এক ব্যাক্তি এতিমখানার জন্য টাকাগুলো বাংলাদেশে পাঠিয়ে ছিলেন।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) সন্ধ্যায় সরাইল থানায় অফিসার ইনচার্জ (ওসি)-এর উপস্থিতিতে এ টাকার প্রকৃত মালিক হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলা থেকে আসা জাবেদ চৌধুরী নামে ব্যক্তি পুরো ৫০ হাজার টাকা বুঝে নেন।

এমরান হোসেন সরাইল উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের প্রত্যন্ত অঞ্চল জয়ধরকান্দি গ্রামের কৃষক আম্বর আলীর ছেলে।

এমরান হোসেন জানান, গত ১৩ এপ্রিল তার ব্যক্তিগত বিকাশ একাউন্টে ৫০ হাজার টাকা জমা হয়। এতো টাকা কে দিল, কিভাবে আসলো তা তিনি বুঝতে উঠতে পারছিলেননা। মনের ভয়ে বিষয়টি নিয়ে কারোর সঙ্গে আলোচনাও করেননি তিনি। প্রায় এক সপ্তাহ পর তার মোবাইলে ফোন দেন নবীগঞ্জ উপজেলার জাবেদ চৌধুরী নামে এক ব্যক্তি। ভুল করে আসা ৫০ হাজার টাকার বিষয়টি জানতে চান জাবেদ; তখন এমরান তার বিকাশ একাউন্টে ৫০ হাজার টাকা জমা হয়েছে বলে বিষয়টি স্বীকার করেন। পরে জাবেদ চৌধুরীকে সরাইলে আমন্ত্রণ জানান এমরান হোসেন।

বুধবার সরাইল থানায় ওসির কক্ষে নবীগঞ্জ উপজেলা থেকে আসা জাবেদ চৌধুরী জানান, এ টাকা লন্ডন থেকে পাঠিয়েছিল; ভুল ক্রমে এ টাকা উনার (এমরান) একাউন্টে চলে আসে। যখন জানতে পেরেছি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল এলাকায় ভুলে টাকা চলে গেছে; তখনই বিশ্বাস ছিল টাকা ফেরত পাবো! কারণ আমরা জানি এই অঞ্চলের মানুষ সৎ ও ইতিবাচক।

এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন সরাইল উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান আবু হানিফ মিয়া, সরাইল উপজেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক তাসলিম উদ্দিন ও মোখলেছুর রহমান প্রমূখ।
টাকাগুলো প্রকৃত মালিকের হাতে তুলে দেয়ার সার্বিক ব্যবস্থা করেন ভাইস চেয়ারম্যান ও মোখলেছুর রহমান।

এ ব্যাপারে সরাইল থানার ওসি আল মামুন মুহাম্মদ নাজমুল আহমেদ জানান, সমাজে এখনও এমরান হোসেনের মতো সৎ ও নিষ্ঠাবান অসংখ্য মানুষ রয়েছেন। টাকাগুলো প্রকৃত মালিকের হাতে তুলে দিতে পেরে আমাদের ভালোই লাগছে।

Leave a Reply

Top