You are here
Home > বাংলাদেশ > জেলার সংবাদ > তিন যুগ ধরে মামলার রায়ের অপেক্ষায় কুষ্টিয়া মিরপুর কবরবাড়িয়ার নুর উদ্দিন বিশ্বাসের পরিবার

তিন যুগ ধরে মামলার রায়ের অপেক্ষায় কুষ্টিয়া মিরপুর কবরবাড়িয়ার নুর উদ্দিন বিশ্বাসের পরিবার

Share

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি।।

দীর্ঘ তিন যুগ পেরিয়ে গেলেও জমিজমা সংক্রান্ত মামলার রায়ের অপেক্ষায় প্রহর গুনতে গুনতে নিঃস্ব হয়ে পড়েছে কুষ্টিয়া মিরপুর কবরবাড়িয়া গ্রামের নুর উদ্দিন বিশ্বাসের পরিবার। সকল সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে চূড়ান্ত যুক্তিতর্ক খন্ডন শুনানিও সমাপ্ত হওয়ার পর থেকে চলছে তারিখের পর তারিখ। ভুক্তভোগী মৃত নুর উদ্দিন পরিবারের সদস্যরা মাননীয় আদালতের বিচারের রায়ের অপেক্ষায় দিন গুনতে গুনতে তারাও আজ নিঃস্ব হয়ে পড়েছে। ১৯৯০ সালে মৃত নূর উদ্দীন বিশ্বাস বাদী হয়ে ১.১৬ একর জমির জন্য গোলাম জিলানী, কোরবান আলী সহ একাধিক ব্যক্তিকে বিবাদী করে কুষ্টিয়া মিরপুর সহকারি জজ আদালতে একটি বিভাগ বন্টন মোকদ্দমা দায়ের করেন যার নং দেং ২২/১৯৯০।
অন্যদিকে গোলাম জিলানী বাদী হয়ে কোরবান আলী সহ আরো একাধিক ব্যক্তিকে বিবাদী করে ১৯৮৮ সালে একই মামলা দায়ের করেন, যার নং দেং ৩৯/১৯৮৮। মামলা দুটির সূত্র একই থাকার সুবাদে দুটি মামলা একই সাথে বিচারাধীন থাকা অবস্থায় উক্ত মোকদ্দমার রায় ডিগ্রির বিরুদ্ধে আপিল করেন যার নং দেং আপিল ১৩০/২০০২ ও দেং আপিল ১৩১/২০০২। উক্ত আপিল মোকদ্দমা দুটিও একত্রে পুনঃবিচারের নিমিত্তে বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন থাকা অবস্থায় এক নম্বর বিবাদী গোলাম জিলানী বিশ্বাস ৩১/১২/২০০৩ তারিখে মৃত্যুবরণ করেন। অপরদিকে বাদী নুরুদ্দিন বিশ্বাস মামলা পরিচালনা করা অবস্থায় ১০/১২/২০০৭ তারিখে মৃত্যুবরণ করেন।

উভয় পক্ষের বাদী বিবাদী দুজনই মৃত বরণ করলে তাদের সন্তানাদি দীর্ঘ তিন যুগ ধরে মামলা দুটি পরিচালনা করে আসছে। দেং ২২/৯০ নম্বর মামলাটির বাদী মৃত নুর উদ্দিন বিশ্বাসের সন্তান মনজুর রহমান, নাজমুল হক, সাইফুল ইসলাম প্রতিবেদককে বলেন, আর কত বছর আমাদের পিতার দায়েরকৃত মামলার রায় ঘোষণা করবেন মহামান্য আদালত? মামলার রায় ঘোষণা না করার কারণে আজ আমরা পথে বসেছি, কোনো ঘরবাড়ি করতে পারছিনা জায়গা জমি সুষ্ঠু বণ্টনের আশায় আমরা আদালতে মামলা দায়ের করেছিলাম মহামান্য আদালত রায় ঘোষণা করতে প্রায় তিন যুগ পার করে দিচ্ছেন।

ভুক্তভোগী পরিবার এটাও বলেন, দুটি মামলারই সমস্ত সাক্ষ্য প্রমাণাদির শুনানি শেষ হয়ে গেছে সেইসাথে চূড়ান্ত যুক্তিতর্কও শেষ হয়েছে গত ২৪/০২/২০২০ তারিখে। তারপর থেকে একটির পর একটি ডেট দিয়ে যাচ্ছেন মহামান্য বিজ্ঞ আদালত। বাদী মৃত নুরুদ্দিন এর সন্তানরা আক্ষেপ করে বলেন, আমরা আমাদের পাওনা সম্পত্তির জন্য আদালতে মামলা দায়ের করে যে পরিমাণ অর্থ ব্যয় করেছি উক্ত অর্থ দিয়ে তার চাইতে বেশি জমি ক্রয় করতে পারতাম। মামলাটি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বর্তমানে আমরা কোন প্রকার ঘরবাড়ি করতে পারছিনা। সেইসাথে স্থায়ীভাবে বসবাস করতে পারছিনা। বাদী মৃত নুর উদ্দিন বিশ্বাসের দায়েরকৃত দেং ২২/৯০ নম্বর মামলাটির আইনজীবী এডভোকেট মাজেজ বিশ্বাস। এডভোকেট মাজেজ বিশ্বাস গত শনিবার রাতে বাদী পরিবারকে জানিয়েছে আগামী ০১/০৩/২০২১ তারিখে মামলার রায় ঘোষণার তারিখ নির্ধারণ হয়েছে। তারিখ নির্ধারণের কথা শুনে মিরপুর থানার সহকারি জজ আদালতের মহামান্য বিজ্ঞ বিচারপতির কাছে মৃত নুর উদ্দিন বিশ্বাসের সন্তানেরা ধার্যকৃত ০১/০৩/২০২১ তারিখে চূড়ান্ত রায় ঘোষণার জন্য বিনীত অনুরোধ জানান।

Leave a Reply

Top