You are here
Home > বাংলাদেশ > জেলার সংবাদ > কিশোরীকে বাসায় আটকে রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করতেন নারী কাউন্সিলর

কিশোরীকে বাসায় আটকে রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করতেন নারী কাউন্সিলর

Share

গাজীপুরে বাসায় আটকে রেখে বিউটিপার্লার কর্মী এক কিশোরীকে (১৬) দিয়ে জোরপূর্বক দেহ ব্যবসা করানোর অভিযোগে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের এক নারী কাউন্সিলরসহ দুজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ওই বাসার কেয়ারটেকারকে গ্রেফতার করেছে।

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ভিকটিম বাদী হয়ে গাজীপুর গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি’র) বাসন থানায় মামলা দায়ের করে। ওই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুল ফারুক এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতারকৃতের নাম নুরুল হক (৬৫)। তিনি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নলজানীর গ্রেট ওয়াল সিটি আবাসিক এলাকার মোফাজ্জল হোসেনের বাড়ির কেয়ারটেকার।

ওসি মোহাম্মদ কামরুল ফারুক জানান, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের (১৬, ১৭ ও ১৮ নং ওয়ার্ডের) সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজীর মালিকানাধীন চান্দনা চৌরাস্তা এলাকার রহমান শপিং মলের আনন্দ বিউটি পার্লারে প্রায় চার মাস আগে চাকরি নেয় ওই কিশোরী। তার বাড়ি নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলায়। পার্লারে চাকরির পাশাপাশি তাকে দিয়ে গৃহকর্মীর কাজ করতে বাধ্য করা হয়। প্রতিবাদ করলে নানা ধরণের হুমকি দেওয়া হতো। এরপর ওই কিশোরীকে বাসায় আটকে রেখে বাড়ির কেয়ারটেকার নুরুল হকের সহযোগিতায় বিভিন্ন সময়ে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করেন কাউন্সিলর রোজী।

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) কৌশলে বাসা থেকে পালিয়ে যায় ভিকটিম। এ ঘটনায় ভিকটিম গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নারী কাউন্সিলর রোজী ও বাড়ির কেয়ারটেকার নুরুল হকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। এছাড়াও মামলায় অজ্ঞাত আরও ২-৩ জনকে আসামি করা হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্ত নুরুল হককে গ্রেফতার করেছে। ঘটনার পর থেকে কাউন্সিলর রোকসানা আক্তার রোজী পলাতক।

Top