You are here
Home > বাংলাদেশ > জেলার সংবাদ > ভাসুরের ‘দা’ এর কোপে আহত ছোট ভাইয়ের বউ

ভাসুরের ‘দা’ এর কোপে আহত ছোট ভাইয়ের বউ

Share

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নের জোতপাড়া গ্রামে ভাসুরের দা এর কোপে আহত হয়ে ছোট ভাইয়ের স্ত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ১২ ফেব্রুয়ারী আড়াইটার দিকে এই ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে কুমারখালী থানায় মামলা হয়েছে।

আহত ইয়াসমিন খাতুন জোতপাড়া গ্রামের আজিজুল ইসলামের স্ত্রী।

এ বিষয়ে আজিজুল ইসলাম জানান, তার পৈতৃক সম্পত্তি সংলগ্ন কিছু জমি তার বড় ভাই কুমিল্লার লাকসাম আলিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক আমিরুল ইসলাম বাৎসরিক চুক্তিতে চাষাবাদ করেন। এবং উল্লেখিত সম্পত্তির সীমানা পিলার তোলা হয়েছে অভিযোগ এনে ১২ ফেব্রুয়ারী জুমার নামাজের পর বড় ভাইয়ের শশুড় রব্বান মিস্ত্রি অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার একপর্যায়ে তাকে মারপিট শুরু করে। এসময় তার স্ত্রী ইয়াসমিন খাতুন ঠেকাতে গেলে বড় ভাই আমিরুল ইসলাম তার স্ত্রীকে দা দিয়ে কপালে কোপ দিলে সে মাটিতে পড়ে যায়। পুনরায় কোপ দিলে হাত দিয়ে ঠেকাতে গিয়ে মারাত্মক আহত হলে হামলাকারী মো. সেলিম হোসেন, মো. শামীম হোসেন ও মো. সুজন হোসেন সহ সবাই স্থান ত্যাগ করে। পরবর্তীতে ইয়াসমিনকে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কপালে ও হাতে সেলাই দিয়ে ভর্তি রাখা হয়। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অপরদিকে আমিরুল ইসলাম ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে কুপিয়ে আহত করার বিষয়ে বলেন তার ছোট ভাই আজিজুল ইসলাম তার বৃদ্ধা মাকে দেখেনা এবং পরিবারের কারো সাথে সম্পর্ক রাখেনা। কোপ দেয়া দুরের কথা সে তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রীর কাছেই যায়নি। মুলতঃ শাবল নিয়ে মহিলাদের মধ্যে ধ্বস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ইয়াসমিনের কপালে লেগে কেটে যায় এবং ছিটকে পড়ে গিয়ে টিনে হাত কেটে যায়। তিনি আরো বলেন আপনারা এলাকায় খোঁজ নিলে প্রকৃত দোষী কে জানতে পারবেন।

Top