You are here
Home > বাংলাদেশ > গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভায় সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন

গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভায় সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন

Share

দেশের ৬৪ পৌরসভার সাথে একযোগে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।অবাধ, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচনের ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

আজ শনিবার (৩০ জানুয়ারী) সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত লাইনে সারিবদ্ধ ভাবে ভোটারেরা বিরামহীন ভাবে নিজেদের ভোট পছন্দের প্রার্থীকে দিয়েছেন।ভোটকে কেন্দ্র করে পৌরসভার কোথায়ও কোনো বিশৃঙ্খলা এবং অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায় নি।একাধিক প্রার্থীর সাথে সাংবাদিকদের কথা হলে তারাও জানান অবাধ সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গোবিন্দগঞ্জ পৌরবাসীকে সুষ্ঠ নির্বাচন উপহার দেওয়ার লক্ষে প্রশাসনের পক্ষ হতে নেওয়া হয়েছিল ৪ স্তরের নিরাপত্তা।এ নির্বাচন উপলক্ষে ভোট কেন্দ্রে আইনশৃংঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত পুলিশ ও বিজিবিকে আইনগত সহায়তার জন্য মোবাইল কোর্ট আইন ২০১৫ এর আওতায় নির্বাচন আচারণবিধি পালনে ৯ টি ভোট কেন্দ্রে ১৫ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও ১ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট সার্বক্ষনিক দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়া প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ৮ জন আনসার সদস্য ও পুলিশের ৪ টি, র‌্যাবের ৩ টি মোবাইলটিম, ৯ টি স্টাইকিং টিম এবং ২ প্লাটন বিজিবি সার্বক্ষনিক দায়িত্ব পালন করেন।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার ২৯ হাজার ৯ শ’ ৭৯ জন ভোটারের ভোট গ্রহনের জন্য ১৫ জন প্রিজাইডিং, ৯২ জন সহকারি প্রিজাইডিং ও ১৮৪ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করেন।

গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক আব্দুল মতিন, জেলা পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার আসাদুজ্জামান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রামকৃষ্ণ বর্মণ, থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসান ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আফজাল হোসেন পৌরসভার বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

এ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের খন্দকার জাহাঙ্গীর আলম (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী মুকিতুর রহমান রাফি (নারিকেল গাছ), বিএনপি’র ফারুক আহমেদ (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আনিছুর রহমান (হাতপাখা) ও মোছা. জহুরা খাতুন (মোবাইল ফোন), সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১২ জন ও ৯ টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।

এদিকে বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে আওয়ামিলীগ মনোনীত প্রার্থী খন্দকার জাহাঙ্গীর আলম দুপুর পর বলেন আমি ৮টি ওয়ার্ডের ১৩টি ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি।অবাধ সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করছে বলে জানান তিনি।তিনি বলেন আমি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।

বিএনপির মনোনীত প্রার্থী ফারুক আহমেদ বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে কালিকাডোবা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে দুপুরে সাংবাদিকদের বলেন সুষ্ঠভাবে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।ফলাফল ঘোষণা পর্যন্ত এমন পরিবেশ প্রত্যাশা করেন তিনি।

স্বতন্ত্র প্রার্থী মুকিতুর রহমান রাফী বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে দুপুর পর সাংবাদিকদের বলেন চমৎকার পরিবেশে সুষ্ঠভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।তিনি বলেন ভোটাররা যে চমৎকার এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পেরেছে এতে আমি আনন্দিত।

Top