কুমারখালীতে নবম শ্রেণির ছাত্রীর স্ত্রীর অধিকার আদায়ে ছেলের বাড়িতে অবস্থান

মোঃ মোমিন ইসলাম, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:37 PM, 02 December 2020

Share

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে নবম শ্রেণির ছাত্রী স্ত্রীর অধিকার আদায়ের জন্য ছেলের বাড়িতে অবস্থানকালে স্থানীয় ইউপি সদস্য জোরপূর্বক ঐ ছাত্রীকে ছেলের বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে । নবম শ্রেণির ছাত্রী অধিকার আদায়ের জন্য বিভিন্ন মহলে ধর্ণা দিচ্ছে বলে জানা গেছে।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর পরিবার জানায়, পান্টি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রীর সাথে পান্টি বাঘবাড়িয়া মোঃ রিয়াজুল ইসলামের ছেলে রাশেদের সাথে প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। রাশেদ তাকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে তার সাথে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পরে। এবং একপর্যায়ে মেয়েটির সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করার চেষ্টা করে। মেয়েটি নিরুপায় হয়ে ২৬ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে রাশেদের বাড়িতে গেলে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এসময় স্থানীয় ইউপি সদস্য আমিরুল ইসলাম ও ছেলের পরিবার পরেরদিন বিয়ে দিবে আশ্বাস দিয়ে রাত সাড়ে ১২ টার দিকে মেয়েটিকে তাদের বাড়িতে দিয়ে আসে। শুক্রবার শালিসি বৈঠকে ছেলে পক্ষ হাজির নাহলে ২৮ নভেম্বর শনিবার মেয়েটি আবার রাশেদের বাড়িতে গেলে ইউপি সদস্য ও পান্টি ফাঁড়ির আই সি তাকে ছেলের বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

এ বিষয়ে স্কুল ছাত্রী জানায় রাশেদের সাথে তার সম্পর্কের বিষয়টি রাশদের মা জানে। বিয়ের কথা বলে তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করেছে রাশেদ। তাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করবে বলে জানায়।

আপনার মতামত লিখুন :