সাতক্ষীরা কালীগঞ্জে এক যুবককে হত্যা করে মরদেহ গাছে ঝুলিয়ে রেখেছে দুর্বৃত্তরা।

মোঃ আলমগীর হুসাইন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  10:44 PM, 03 November 2020

Share

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে আবির হোসেন বাবু (২৮) নামে এক যুবককে হত্যা করে মরদেহ গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। সোমবার (২ নভেম্বর) দিবাগত রাতে উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের নীলকণ্ঠপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) সকালে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে।

পুলিশ বলছে, হত্যার পর মরদেহ গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। আলমত দেখে আত্মহত্যা মনে হচ্ছে না। নিহত আবির হোসেন বাবু নীকণ্ঠপুর গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য খলিলুর রহমান জানান, সোমবার সন্ধ্যা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বাঁশতলা বাজারে চায়ের দোকানে ছিলেন বাবু। পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে। হাত ও পায়ের নখে রক্ত রয়েছে। বসতবাড়ির একশ গজ দূরে পুকুর পাড়ে গাছের ডালে গলায় স্ত্রীর ওড়না পেঁচিয়ে তাকে ঝুলিয়ে রাখে হত্যাকারীরা। সকালে ঘটনাটি স্থানীয়রা দেখার পর থানায় খবর দেন।

বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ রিয়াজ উদ্দীন বলেন, বাবুকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে হত্যা করে মরদেহ গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। তদন্তপূর্বক হত্যাকারীদের শাস্তির দাবি করছি।

কালিগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেন বলেন, মরদেহের অণ্ডকোষ ও পায়ের নখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে হত্যা করে মরদেহ গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে ধারণা করছি। তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন এ ঘটনায় জড়িত রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে সন্দেহ করা হচ্ছে। এখনও কাউকে আটক করা হয়নি। ঘটনার তদন্ত চলছে। মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :