কুমিল্লার লালমাইয়ে চাঞ্চল্যকর শিশু শাহপরান হত্যার রহস্য উদঘাটন, গ্রেফতার ০৪।

নাফিউ জামান, কুমিল্লা প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  03:45 PM, 15 October 2020

Share

কুমিল্লার লালমাই উপজেলায় শিশু শাহপরান হত্যা মামলায় ০৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার প্রযুক্তির সহায়তায় নূরউদ্দিন, শহিদ উল্লাহ,গোলাপ হোসেন ও নাসির উদ্দীনকে গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজিম উল আহসান।

তিনি জানান, গত ১২ সেপ্টেম্বর উপজেলার বড় চলুন্ডা ব্র্যাক স্কুলের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র শাহপরানের লাশ হাত-পা বাঁধা অবস্থায় জয়নগর গ্রাম সংলগ্ন ডাকাতিয়া নদীর পাড়ে পাওয়া যায়।পরবর্তীতে লালমাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আইয়ুবের নেতৃত্বে জেলা পুলিশের একটি চৌকস দল হত্যার রহস্য উদঘাটনে নিবিড় তদন্ত করে।এসময় পুলিশ লালমাই থানা এলাকার ১৩ টি সিসিটিভি ক্যামেরার প্রায় সাড়ে চারশত ঘন্টার ফুটেজ পর্যালোচনা করে একটি অংশের ৫ সেকেন্ডের ফুটেজে অটোরিকশা সহ শিশু শাহপরান ও ঘাতক নূরউদ্দিনকে চিহ্নিত করে।প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের হত্যার দায় স্বীকার করে আসামীরা।তাদের স্বীকারোক্তিমতে একটি অটোরিকশা সহ অন্যান্য আলামত উদ্ধার করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তানভীর সালেহীন ইমন পিপিএম,লালমাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আইয়ুব সহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকতারা।

উল্লেখ্য, গত ১১ সেপ্টেম্বর সকালে বড় ভাইয়ের অটোরিকশা মেরামত করতে উপজেলার বাগমারা বাজারে গিয়ে নিখোঁজ হয় শিশু শাহপরান। পরে তার খোঁজ পেতে বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করা হয়। পরদিন পার্শ্ববর্তী জয়নগর গ্রামের ডাকাতিয়া নদীর পাড়ে তার লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। এ ঘটনায় অজ্ঞাত আসামীদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করে নিহতের বাবা আবদুল মালেক।হত্যার একমাস পর গতকাল আসামীদের গ্রেফতার করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :