You are here
Home > বাংলাদেশ > রাজশাহীর কাঁচাবাজারে নজিরবিহীন আলুর দাম।

রাজশাহীর কাঁচাবাজারে নজিরবিহীন আলুর দাম।

Share

রাজশাহীর কাচাঁবাজারে নিয়ন্ত্রণহীন আলুর মূল্য। প্রতি কেজি আলুর দাম উঠেছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা দরে। গত তিন দিনের মধ্যেই পণ্যটির কেজিতে ১০-১৫ টাকা পর্যন্ত দাম বেড়েছে।

কৃষি বিভাগ ও আড়তদারেরা দাবি করছেন, চলতি বছরের করোনাভাইরাসের আঘাত ও দফায় দফায় বন্যার কারণে ত্রাণে আলু বিতরণ করা হয়েছে। যার ফলে দাম বেড়েছে। এছাড়াও মজুদকৃত যা আলু ছিলো বাজারে নিয়ে বিক্রি প্রায় শেষের দিকে।
কৃষি মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, বর্তমানে দেশে এক কোটি টন আলু উৎপাদনের বিপরীতে বার্ষিক চাহিদা ৭০ লাখ টন। সেই হিসাবে ৩০ লাখ টন আলু উদ্বৃত্ত থাকলেও দাম বাড়ার জন্য সংকটের দোহাই দিচ্ছেন আড়তদাররা।

তবে উল্টো কথা বলছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা, তাদের অভিযোগ চাল, ডাল, পেঁয়াজ, কাঁচামরিচসহ যাবতীয় নিত্যপণ্যের দাম বাড়ানোর সুযোগ নিয়েই আড়তদারেরা এই সুযোগ নিয়েছেন।

ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) তথ্য মতে, আলুর দাম গত বছরের তুলনায় প্রায় ১০০ শতাংশ বেশি। তবে বাজার বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, গত বছরের তুলনায় এই বছরে ১৩৩ শতাংশ বেশি।

আজ সোমবার (১২ অক্টোবর) রাজশাহীর সাহেববাজার, নিউমার্কেট মাস্টারপাড়া এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিকেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ৪৫-৫০ টাকা দওে বিক্রি হচ্ছে।

বাজারকারী ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে এমন আলুর দাম দেখিনি। ৪০-৫০ টাকার কম দামে কোন সবজি নাই। সব কারসাজি করছে মজুদদারেরা। গত ৩ দিনের ব্যবধানে আড়তদাররা কেজিতে ১০-১৫ টাকা দাম বাড়িয়েছেন বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক শামছুল হক জানান, বন্যায় ত্রাণ হিসেবে আলু দেওয়া হয়েছে। বন্যার পানিতে বিভিন্ন সবজি ডুবে নষ্ট হয়ে যাওয়ায় মানুষ সবজি হিসেবে আলু বেশি খেয়েছে। পানি নেমে গেলে দাম কমে যাবে। আলুর দাম আর বাড়বে না জানিয়েছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

নিয়ন্ত্রণহীন প্রত্যেক কাঁচাবাজারে আলুর দাম আবার নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে। এমন লাগামহীন দামে আলু বিক্রি হওয়ায় বাজারে নেমেছে ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

এ বিষয়ে রাজশাহী ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক অপূর্ব অধিকারী বলেন, আমরা বাজার মনিটর করছি। কিন্তু যাকেই ধরছি তারাই মেমো দেখাচ্ছে। সাধারণ বিক্রেতারা দাম বাড়াতে পারেন না। আজ হড়গ্রাম বাজারে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। ব্যবসায়ীরা তাদের মেমোতে বলছে ৪৩ টাকা কিনে ৪৫ টাকা দরে বিক্রি করছি।

রাজশাহীর কাঁচাবাজারগুলো ক্রমশই বেড়েই চলেছে সবজির দাম। গতসপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহের মধ্যেই কেজি প্রতি সবজির দাম বেড়েছে ২০ থেকে ৩০ টাকা। বাজারে প্রতিকেজি সবজির দাম সর্বনিম্ন ৪০ টাকা।

 

 

Top