বরিশালে মাদ্রাসার ছাত্রকে মারধরের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার।

এইচ এম লিজন, বরিশাল প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  08:21 PM, 28 September 2020

Share

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার হোসনাবাদ মদিনাতুন উলুম নূরানী হাফেজী মাদ্রাসার নাজেরা বিভাগের এক আবাসিক ছাত্র বিলম্বে মাদ্রাসায় আসায় পিটিয়ে আহত করেছে শিক্ষক। এ ঘটনায় রোববার সকালে গৌরনদী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছে নিযার্তিত শিশুর পিতা বাচ্চু হাওলাদার। পুলিশ মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত শিক্ষক হাফেজ মোঃ শরিফুল মাহমুদকে (২৪) গ্রেফতার করেছে।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তৌহিদুজ্জামান জানান, গৌরনদী থানার সীমান্তবর্তী মুলাদী উপজেলার মিয়ারচর গ্রামের বাচ্চু হাওলাদারের পুত্র মোঃ ইয়াসিন হাওলাদারকে (০৮) উপজেলার হোসনাবাদ মদিনাতুন উলুম নূরানী হাফেজী মাদ্রাসার নাজেরা আবাসিক বিভাগের ভর্তি করেন। মাদ্রাসার বেতন আনার জন্য ইয়াসিন বৃহস্পতিবার ক্লাশ শেষে ছুটিতে বাড়ি যায়। শুক্রবার বিরামহীন বৃষ্টি ও তার (ইয়াসিন) পিতা টাকা জোগার করতে না পারায় মাদ্রাসায় আসতে পারেনি। শনিবার দুপুরে মাদ্রাসায় পৌঁছলে শিক্ষক হাফেজ মোঃ শরিফুল মাহমুদ গাব গাছের লাঠি দিয়ে এলোপাথাড়ি পিঠিয়ে আহত করে। শিশুটির ডাকচিৎকারের স্থানীয়রা উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেন। এ ঘটনায় শিশুটির পিতা বাচ্চু হাওলাদার রোববার সকালে বাদি হয়ে মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে। দুপুরে বরিশাল অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করলে আদালত বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরন করে।
মারধরের ব্যাপারে থানা হাজতে বসে হাফেজ মোঃ শরিফুল মাহমুদ বলেন, ইয়াসিন প্রায়ই ক্লাশ বন্ধ দিয়ে বাড়ি যায়। ইয়াসিনের দেখাদেখি অন্য শিশুরা নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল। তাই ওকে শাসন করেছি।

আপনার মতামত লিখুন :