You are here
Home > বাংলাদেশ > বরিশালে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত।

বরিশালে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত।

Share

বরিশালে বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষ্যে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে আলোচনা সভা, রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে পর্যটন দিবসের গুরুত্ব ও বরিশাল জেলায় পর্যটনের অপার সম্ভবনা তুলে ধরে বক্তব্য দেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান।

বরিশালের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শহিদুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাঈমুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তৌহিদুজ্জামান পাভেল, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হোসেন চৌধুরী, গণপূর্ত বিভাগ নির্বাহী প্রকৌশলী জেড়ান্ড অলিভার গুডা, নির্বাহী প্রকৌশলী এলজিইডি বরিশাল শরীফ মোঃ জামাল উদ্দিন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান উজিরপুরসহ সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও পুরস্কার বিজয়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রজেক্টরের মাধ্যমে বরিশালের আকর্ষনীয় ও দর্শনীয় পর্যটন স্থানের বিভিন্ন চিত্র নিয়ে জেলা প্রশাসন এর ভিডিও ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়, যাদেখে অনুষ্ঠানের অতিথিরা মুগ্ধ হয়। এরপর অতিথিরা আন্তর্জাতিক পর্যটন দিবস উপলক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে পর্যটন দিবস উপলক্ষে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসক বরিশাল কর্তৃক আয়োজিত রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় প্রতিযোগীদের মাঝে সনদ ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

পর্যটন দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান বলেন, বরিশালের দূর্গাসাগর এবং সাতলার লাল শাপলার বিলকে আকর্ষনীয় ও দর্শনীয় পর্যটন এলাকায় পরিনত করা হবে। পর্যটন এলাকা শুধু শিল্প নয় এখান থেকে একদিকে যেমন কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে অণ্যদিকে পর্যটনের অর্থে দেশ হবে অর্থনৈতিক স্বাভলম্ভি। ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে দূর্গাসাগর সহ শাপলা বিল এলাকায় রেস্টহাউজ ও গেস্টহাউজ নির্মাণ করা সহ বরিশালের গুঠিয়া জামে মসজিদ,শেরে বাংলার যাদুঘড় এলাকায় বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজে পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে যা আগামী বছরের মধ্যে সম্পূর্ণ করা সম্ভব হবে। বরিশালের অপরুপ সৌন্দয্য আকর্ষনীয় ও দর্শনীয় নিলাভূমি গড়ে তোলার ক্ষেত্রে শুধু জেলা প্রশাসকের একার পক্ষে সম্ভব নয় এখানে সকলের সহযোগীতায় হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। ইতিমধ্যে দূর্গাসাগর আকর্ষনীয় পর্যটন এলাকা গড়ার জন্য সরকারের পক্ষথেকে ১৬ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা বরাদ্ধ পাওয়া গেছে যা দিয়ে শিঘ্রই দর্শনীয় উন্নয়নমূলক কাজ করা হবে। এজন্য সরকারের পাশাপাশি বেসরকারী বিনিয়োগকারীদের এগিয়ে আসার জন্য জেলা প্রশাসক আহবান জানান।

Top