নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন পৌরসভা গড়তে সহযোগিতা চাইলেন মেয়র মোস্তাক

সোহেল রানা, জয়পুরহাট প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  10:38 PM, 20 November 2020

Spread the love

মানুষ আমাকে ভালোবাসে, ভালো জানে তাই প্রথমবার আমাকে মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করেছেন। ভবিষ্যতের বিষয়ে আগাম কিছু বলা ঠিক না, কতো মানুষ বলে আপনি এটা হবেন সেটা হবেন। আমার এতো দরকার নাই, আমি যে অবস্থানে আছি সে অবস্থান নিয়েই চিন্তা করি। আমার এই ৫ বছরের অভিজ্ঞতার আলোকে ৩০ বছরের পরিকল্পনা করেছি। বলে মন্তব্য করেছেন জয়পুরহাট পৌরসভার মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক। তিনি বলেন আমার বিশ্বাস, আমি যে কাজ করেছি তাতে পৌরবাসী সন্তুষ্ট হয়েছেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় পৌর শহরের গুলশানমোড় এলাকায় ১ নং ওয়ার্ড এলাকাবাসীর আয়োজনে মেয়রের পাঁচ বছর পূর্তি উপলক্ষে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি ।

এসময় পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, পৌরসভাকে নিয়ে আমি না সবাই স্বপ্ন দেখেন। প্রথমবার যখন দায়িত্ব পেয়েছি তখন থেকেই কিছু কাজ করার চেষ্টা করেছি, এবার আরো ভালো কাজ করার চেষ্টা করবো। তারপরও আমরা অনেকে বলি আধুনিক, অনেকে বলে ডিজিটাল আবার আলোকিত। কিন্তু আমি বলতে চাই আধুনিক হোক আর ডিজিটাল হোক সবধরনের নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন একটি পৌরসভা গড়তে চাই। আমাদের অভিভাবক জাতীয় সংসদের হুইপ ও জয়পুরহাট -২ আসনের সংসদ সদস্য আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন ভাইয়ের সহযোগিতায় ও নির্দেশনায় এ পৌরসভার ব্যাপক উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে।’

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোমিন আহম্মেদ চৌধুরি, গোলাম হক্কানী, জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিক, জয়পুরহাট ইমাম ও মোয়াজ্জেম পরিষদের সভাপতি জয়নাল আবেদীন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি প্রভাষক মাসুদ রেজা, সাধরণ সম্পাদক খোরশেদ আলম সৈকত, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাকারিয়া হোসেন রাজা,সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদ, সাগর আহম্মেদ প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :