হাসান আল মামুনের আইডি হ্যাক, দাবী ফেসবুক পেজে।

বিশেষ প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  02:14 AM, 17 October 2020

Spread the love

গত ১৬ অক্টোবর হঠাৎ ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত হওয়া সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের হাসান আল মামুনের ব্যক্তিগত ফেসবুক একাউন্টে নুরুল হক নুরুর নামে একাধিক অভিযোগ করে একটি পোস্ট করা হয়। যেখানে উল্লেখ করা হয়, নুরুল হক নুরু সাধারণ ছাত্র অধিকারের সাইনবোর্ড লাগিয়ে পকেট ভারি করতেন ভিপি নুর।

এই বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সোরগোল শুরু হয়। পরবর্তীতে, প্রত্যক্ষ করা যায় ৫০হাজার লাইকের অধিক হাসান আল মামুন নামে একটি পেজ থেকে দাবী করা হয়, সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদ থেকে অব্যহতি পাওয়া হাসান আল মামুনের ব্যক্তিগত আইডিটি হ্যাক হয়েছে। এই বিষয়ে দুইটি স্ট্যাটাস পেজে পরিলক্ষিত হয়।

প্রথম ও দ্বিতীয় স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হল,
“আমার আইডি হ্যাক করা হয়েছে ৩/৪ দিন আগে। ফেইসবুক আইডি থেকে বিভ্রান্তি মূলক পোস্ট করা হচ্ছে। দয়া করে কেউ বিভ্রান্ত হবেন না।”

“বাটপার গুলো আমাকে সহ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাদের চরিত্রে কালিমা লেপন করতে এই মেয়েকে দিয়ে মিথ্যা মামলা সাজিয়েছে। ৩/৪ দিন আগে আমার আইডি হ্যাক করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে যা আমি এই পেইজের পোস্টের মাধ্যমে সবাইকে অবগত করেছি। আর কতো ষড়যন্ত্র করবি ছাত্র অধিকার পরিষদ নিয়ে? আইডি থেকে যে পোস্ট করা হয়েছে সেখানে নুর কে নুরু বলা হয়েছে। আমি কখনও নুর কে নুরু বলে সম্মোধন করিনা। নুরুল হক নুর কে আমি নুর বলেই ডাকি সে আমার হলের ছোট ভাই এবং সহযোদ্ধা। ছাত্র অধিকার পরিষদের প্রতিটি নেতা কর্মী সেটা জানে।
তাই দয়া করে কেউ বিভ্রান্ত হবেন না। আমার নামে করা মিথ্যা মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত নুর, রাশেদ, ফারুক, মশিউর, সোহরাব, মাহফুজ, আবু হানিফ , মিনা আলামীন, তারেক ভাই সহ এদের নেতৃত্ব এগিয়ে যাবে ছাত্র অধিকার পরিষদ।”

আপনার মতামত লিখুন :