মন্ত্রিপরিষদ গঠনের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হওয়ায় লেবাননের নতুন প্রধানমন্ত্রী “মোস্তাফা আদিব” পদত্যাগ করেন।

মনির হোসেন রাসেল, আন্তর্জাতিক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  08:14 PM, 26 September 2020

Spread the love

মন্ত্রিপরিষদ গঠনে যুগান্তকারী প্রচেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার পরে লেবাননের মনোনীত নতুন প্রধানমন্ত্রী “মোস্তাফা আদিব” পদত্যাগ করেছেন।

আজ ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবার রাষ্ট্রপতি মিশেল আউনের সাথে ষষ্ঠ পরামর্শের পরে সংবাদ সম্মেলনের ভাষণে মোস্তাফা আদিব বলেন, “আমি সরকার গঠনের কাজ চালিয়ে যাওয়া থেকে নিজেকে বিরত রাখছি। আমি লেবাননের জনগণের কাছে ক্ষমা চাইছি”।

তিনি আরো বলেন, ফরাসি উদ্যোগ অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান। রাষ্ট্রপতির দপ্তর থেকে বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে, প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ গ্রহণ করা হয়েছে এবং রাষ্ট্রপতি “মিশেল আউন” সংবিধানের প্রয়োজনীয়তা অনুসারে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানানো হয়।

এদিকে বৈরুত বন্দরের বিস্ফোরণে ১৯০ জন নিহত এবং ৬,৫০০ জন আহত ঘটনায় গত ১০ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী “হাসান ডিয়াব” পদত্যাগ করার পর মোস্তাফা আদিব কে প্রধানমন্ত্রী মনোনীত করা হয় এবং একটি নতুন সরকারের অপেক্ষায় ছিল লেবাননবাসী।

অর্থ মন্ত্রণালয়ে সাম্প্রদায়িক নেতৃত্ব পরিবর্তন করে চারটি স্বাধীন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বের প্রস্তাব শিয়া দল অমল মুভমেন্ট এবং হিজবুল্লাহ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলে আদিব মন্ত্রিসভা গঠনে বড় বাধার সম্মুখীন হন। উল্লেখ্য যে, ২০১৪ সাল থেকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্বে একজন শিয়া সম্প্রদায়ের নাগরিক রয়েছেন।

এই সপ্তাহে এই বিষয়ে একটি সম্ভাব্য অগ্রগতি হয়েছিল, বৃহস্পতিবার আমিব আমল মুভমেন্ট আন্দোলন এবং হিজবুল্লাহর কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করেছেন মোস্তাফা আদিব।

আমল মুভমেন্টের মুখপত্র এবিসি অান্তর্জাতিক চ্যানেলকে জানিয়েছে যে মোস্তাফা আদিব, অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্ভাব্য শিয়া প্রার্থী প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী “আলী হাসান খলিল” এবং “হুসেন খলিলকে” উপস্থাপন করা হয়েছে এবং উভয় পক্ষের মধ্যে আরও আলোচনা হবে। আলী হাসান খলিল সংসদ স্পিকার “নবীহ বেরির” শীর্ষ রাজনৈতিক উপদেষ্টা এবং হুসেন খলিল হিজবুল্লাহর প্রধান “সৈয়দ হাসান নসরাল্লাহর” অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক সহযোগী।

হিজবুল্লাহ এবং আমল মুভমেন্ট দুই দলই বলেছে যে, তারা আসন্ন সরকারের জন্য ফরাসি রাষ্ট্রপতি “ইমমানুয়েল ম্যাক্রোঁর” প্রস্তাবিত সড়ক মানচিত্রের প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

গেল আগস্টের ৪ তারিখে, বন্দর বিস্ফোরণের পরে লেবাননের জন্য ইউএন-সমর্থিত দাতা সম্মেলনের আয়োজনকারী ফরাসি রাষ্ট্রপতি ম্যাক্রোঁ বলেছেন যে, নতুন “মিশন সরকার” দ্রুত তার রোডম্যাপে থাকা কিছু মূল সংস্কারের মাধ্যমে এগুলে তিনি দ্বিতীয় দাতা সম্মেলনের আয়োজন করবেন।

ম্যাক্রোঁ’র ১ সেপ্টেম্বর ২০২০ লেবাননে সফরকালে দেশটির রাজনীতিবিদরা বলেছিলেন যে, তারা ১৫ দিনের মধ্যে একটি নতুন সরকার গঠন করবেন। এই সময়সীমা এক সপ্তাহেরও বেশি সময় আগে পেরিয়ে গেছে এবং ফরাসি কর্মকর্তারা বারবার লেবাননের রাজনৈতিক দলগুলিকে সরকার গঠনের জন্য এবং দেশের সবচেয়ে খারাপ আর্থিক সঙ্কট মোকাবেলায় একযোগে কাজ করার জন্য অনুরোধ করেছেন।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী “সা’দ হারিরি”, আদিবের পুনর্বিবেচনার জবাবে বলেছিলেন যে ,ম্যাক্রনের উদ্যোগের ব্যর্থতা উদযাপনকারী যে কেউ অনুশোচনা করবে। তিনি অারো বলেন, “একটি ব্যতিক্রমী সুযোগ নষ্ট করবে”

সা’দ হারিরি বিবৃতিতে বলেছিলেন, লেবাননের রাজনীতিবিদরা বিশ্বজুড়ে আমাদের বন্ধুবান্ধবদের সামনে জনগণের বিষয় পরিচালনায় ব্যর্থতা এবং জাতীয় স্বার্থের কাছে পৌঁছানোর অসম্মানজনক উদাহরণ উপস্থাপন করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :